parallax background

ঈদ আয়োজনে ইনডোর-আউটডোরের সাজে লাইটস

By Tasnim Jarin

ঈদ উৎসব মানেই হলো হরেক রকম আয়োজন। ঘর সাজানোর প্রস্তুতি থেকে শুরু করে, মেহমান দাওয়াত, বাজারসদাই কেনা, রান্নাবান্নার আয়োজন, আরও কত কী! এই আয়োজনের জন্য উত্তেজনা যেমন কাজ করে, তেমনি সবকিছু ঠিকঠাক মতো করা নিয়েও অনেক সময় চিন্তায় পড়ে যাই। তাই শেষ মুহূর্তে তড়িঘড়ি না করে প্রস্তুতি নেয়া চাই আগে থেকেই। 

এবারের ঈদ আয়োজনে ঘরের সাজে একটু ভিন্নতা আনতে ব্যবহার করতে পারেন দারুণ সব লাইটস। উৎসবের অন্যান্য আয়োজনের সাথে যদি ঘর আলোয় আলোকিত না হয়, তবে তো একটা অপূর্ণতা থেকেই যাবে। আর এই অপূর্ণতাকে পূর্ণ করতে এবারের ঈদ সেলিব্রেশনে ঘর সাজানোর থিমে থাকুক আলো-ছায়ার খেলা অর্থাৎ, দারুণ সব লাইটস।

উৎসবের আলোয় আলোকিত করতে ঘরের ভেতর এবং বাহির, দুই জায়গাতেই থাকুক সারি সারি আলো। ইনডোর এবং আউটডোর সাজাতে তাই কেমন ধরনের লাইটস বেছে নিবেন, চলুন জেনে নেয়া যাক।

পেন্ডেন্ট ল্যাম্প

বাড়ির লিভিং স্পেস, ড্রইং এবং বাড়ির ছাদের অংশের ডেকোরেশন এর জন্য পেন্ডেন্ট ল্যাম্প দারুণ এক অপশন। পেন্ডেন্ট ল্যাম্প বিভিন্ন শেপ এবং ডিজাইনের হয়ে থাকে। এক্ষেত্রে গোলাকৃতির সাদা বল টাইপের ল্যাম্প মাঝারি এবং বড় আকৃতির ৩ থেকে ৪টি বাড়ির বাহিরের অংশ অর্থাৎ ছাদ, বারান্দা বা বাসার সামনের গার্ডেন এরিয়াতে মানাবে বেশ। নিয়ন আলোর উপস্থিতিতে গল্পে আড্ডায় আসর জমিয়ে তুলতে দারুণ এই ল্যাম্প কিন্তু হতে পারে আউটডোর ডেকোর এর জন্য দারুণ চয়েস। এছাড়া ইনডোরের সিলিং-এ ব্যবহারের জন্যও ঘরের আকৃতি বুঝে অন্যান্য ডিজাইনের পেন্ডেন্ট ল্যাম্প সেট লাগিয়ে নিতে পারেন।

স্ট্রিং লাইট

উৎসবে ঘর সাজানোর কথা বললে যেমন সবার প্রথম বিভিন্ন ধরনের লাইটস এর কথা মাথায় আসে, তেমনি ডেকোরেশন লাইটস এর কথা বললে সবার মনেই আসবে স্ট্রিং লাইট এর কথা। উৎসবের সময় হোক কিংবা অন্য যেকোনো সময় স্ট্রিং লাইট বেশ জনপ্রিয়। স্ট্রিং লাইট এর সবচেয়ে বড় সুবিধা হলো এর লাইটিং ব্যবস্থা। এই লাইট সেট করা তেমন কঠিন কোন কাজ নয়। তাই আপনি নিজেই চাইলে বাড়তি কোন ঝামেলা ছাড়াই এর সেটআপ করতে পারবেন। একটি লম্বা স্ট্রিং-এ অনেকগুলো ছোট বা বড় লাইটস থাকে। এই লাইটসের সংখ্যা ১২ থেকে শুরু করে আরও অনেক সংখ্যার হতে পারে। ছোট-বড় বিভিন্ন লাইটসের এই স্ট্রিং লিভিংরুম, বেডরুম, বারান্দায় ব্যবহার করা যায়। অনেকে আবার স্ট্রিং লাইট কাঁচের জারে ভরে তা টেবিল, শেলফ কিংবা ডাইনিং টেবিলে রাখেন। মেহমানদের অতিথি আপ্যায়নের জায়গা সাজাতে হলদে আভার এই স্ট্রিং লাইট ব্যবহার করতে পারেন।  

এছাড়া এই স্ট্রিং লাইটস দিয়ে আপনি ঈদের সময় ঘরের দরজার প্যানেল, বারান্দা, সিলিং অথবা স্পেশাল ফটো কর্নার সাজাতে পারেন, যা ঘরের ভেতর এবং বাইরে উৎসবের আমেজ তৈরি করবে।    

ফ্লোর ল্যাম্প

ঈদের আয়োজনে ঘরে একটু ক্ল্যাসিক ভাব আনতে ফ্লোরে ব্যবহার করতে পারেন কালারফুল রাগস। আর এর আশেপাশে রাখুন থ্রো পিলো। এবার বসার এই জায়গাটা আরও আর্টিস্টিক করতে ব্যবহার করুন ফ্লোর ল্যাম্প। ফ্লোর ল্যাম্প অনেকটা ফোকাস লাইটের মতো নির্দিষ্ট ঐ জায়গাটি আলোকিত করে তুলবে। এবার ভাই-বোনরা বা বন্ধুরা মিলে বসে দারুণ একটা আড্ডা দিয়ে দিন ঈদের এই উৎসবকে আরও আনন্দময় করে তুলতে।

ক্যান্ডেল ল্যাম্প

ইনডোর বা ঘরের ভেতর সাজানোর ক্ষেত্রে ক্যান্ডেল ল্যাম্প অনেক সুন্দরভাবে ফুটে উঠবে। ক্যান্ডেল ল্যাম্প এর মজার দিক হলো এটি দেখতে ক্যান্ডেল এর মতো হলেও আসলে একটি এলইডি লাইট, যা দূর থেকে দেখলে মনে হবে মোমবাতির আলো। তাই সরাসরি মোমবাতি ব্যবহার না করে ক্যান্ডেল এর মায়াবী আলোয় ডাইনিং টেবিল সাজানোর জন্য রাখতে পারেন। এছাড়া রুমের বিভিন্ন কর্নার সাজাতে কর্নার টেবিল কিংবা শেলফের উপরে রাখার জন্য কিনতে পারেন ক্যান্ডেল ল্যাম্প। ঈদে ঘর সাজানোর জন্য ক্যান্ডেল ল্যাম্প একটি না রেখে ছোট ও মাঝারি আকৃতির ২ থেকে ৩টি ক্যান্ডেল পাশাপাশি রাখুন। এতে করে আলোর পরিমাণটাও বাড়বে, যা দেখতে বেশ সুন্দর লাগবে।  

ল্যান্টার্ন

সাধারণত দেয়ালে আলো ছায়ার আবেশ তৈরিতে ল্যান্টার্ন বেশ দারুণ এক আইডিয়া। বাসার প্রবেশ পথের দেয়াল, করিডোর, সিঁড়ি ঘরের মুখে অথবা ড্রইং রুমের দেয়ালে হালকা আলো-ছায়ার আবেশ তৈরিতে এই হারিকেন আকৃতির ল্যাম্প বেশ সুন্দর দেখায়। তবে ছাদে কিংবা বাড়ির উঠোনে আড্ডার আয়োজনে এই ল্যাম্প সেট করতে চাইলে দড়ির মধ্যে ঝুলিয়েও নির্দিষ্ট জায়গাটি সাজিয়ে নিতে পারেন।

ঈদের আয়োজনে ঘরে উৎসবের আমেজ আনতে ডিজাইন এবং ধরন বুঝে কিনতে পারেন বিভিন্ন ধরনের লাইটস। এতে করে ঘরের লুকে যেমন পরিবর্তন আসবে তেমনি ঈদ আয়োজনে ঘরে সেলিব্রেশনের আবহটাও কিন্তু জমবে বেশ! আনন্দে কাটুক সবার ঈদ আয়োজন।

  •  
  •  
  •  
  •   

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *