parallax background

পরিবারে নতুন শিশুর আগমনঃ হয়ে যাক দারুণ কিছু!

সাদিয়া ইসলাম বৃষ্টি

পরিবারের নতুন সদস্য শিশুটি প্রথমবারের মতো বাড়িতে আসতে চলেছে। উচ্ছ্বাস আর ভালোবাসা তার প্রত্যেকের ভেতরে খেলা করবে এমনটাই স্বাভাবিক। কিন্তু এতো আনন্দের ভীড়ে নতুন শিশু আর তার মায়ের জন্য বিশেষ কোন আয়োজন করার কথাটি মাথায় রেখেছেন তো? বিশেষ এই দিনের জন্য প্রয়োজন বিশেষ পরিকল্পনাও। চলুন না, আজকেই তাহলে নতুন শিশুকে পরিবারের স্বাগতম জানানোর জন্য দারুণ কিছু পরিকল্পনা করে ফেলা যাক!

স্বাগতমের শুরু হোক দরজা থেকেই

শিশুকে জানান স্বাগতম!

শিশুদের স্বাগতম জানানোর জন্য পছন্দেরর রঙয়ের নানারকম ডোরম্যাট পাওয়া যায়। ঘরের ঠিক বাইরে, দরজার সাথে সাজিয়ে রাখুন ডোরম্যাটটি। সাথে দরজাটিকে সাজাতে ভুলবেন না। রঙিন কাগজে ‘ওয়েলকাম হোম বেবি’সহ নিজের মনের কথাগুলো লিখে দিতেই পারেন! সাথে থাকতে পারে বেলুন, বাড়তি ঘর সাজানোর উপাদান ইত্যাদিও।

শিশুর ঘরে প্রবেশের প্রথম মুহুর্তটি সবসময়ের জন্য ধরে রাখতে ছবি তুলতে পারেন। অন্যদিকে, খুব সহজেই উপরের উপাদানগুলো অনলাইনে পেয়ে যাবেন আপনি। তবে কাপড় আর তাতে রঙিন সুতর আঁকিবুঁকি দিয়ে নিজের মতো করে ডোরমেট বানিয়ে নিতে পারেন বাসাতেও। 

ঘরের দেয়ালে বিশেষ বার্তা

ছোট্ট খাট আর দেয়াল জুড়ে থাকুক রঙ আর খুশির চমক!

মা এবং শিশু ঘরে প্রবেশ করার সাথে সাথেই তাদেরকে ফুল, বেলুন ইত্যাদি দিয়ে স্বাগতম জানান। তবে একইসাথে ঘরের ভেতরের দেয়ালে ভালোবাসার কোন বার্তা লিখে দিতেই পারেন। বার্তার পাশে রাখতে পারেন এ পর্যন্ত তোলা গর্ভধারণ, শিশুটির জন্ম নেওয়া এবং পারিবারিক অন্যান্য সবগুলো আলোকচিত্রও। এক্ষেত্রে কাগজে নিজের ইচ্ছেমতও রঙ আর শব্দচয়ন করতে পারেন আপনি।

শুধু আপনার বার্তাই নয়, শিশুর পরিবারের সবার কাছ থেকে আসা শুভেচ্ছাবার্তাগুলো দেয়ালে একটি সুতোয় ঝুলিয়ে দিতে পারেন। এছাড়াই সেগুলোকে দেয়ালে আটকে রাখতে পারেন। ভালোবাসার বাররাতগুলো দেয়ালে রেখে একটা ভিডিও-ও করে ফেলা যেতে পারে! 

মিষ্টিমুখ হয়ে যাক

কেকটা নিশ্চয়ই কেনা হয়েছে?

এতো সুন্দর একটি আয়োজনে বিশেষ কেক থাকবে না, তা তো হয় না! দোকানে ছেলে শিশু এবং মেয়ে শিশু- উভয়ের জন্য ভিন্ন ধরণের কেক কিনতে পাবেন। প্রয়োজন অনুসারে শিশুর নাম, পছন্দের রঙ এবং ধরণের কেকটি বেছে নিন। বিখ্যাত বেকারিগুলো এখন হোম ডেলিভারি দিচ্ছে। আর তাছাড়া রয়েছে অনলাইনে নানারকম কেক ও বেকারি শপের বাহার। বিশেষ করে, অনলাইনে কাস্টমাইজড কেক খুব সহজেই পাওয়া যায়। কেকের ক্ষেত্রে বেছে নিতে পারেন এগুলোর যেকোনো একটিকে। এছাড়াও ইউটিউবে কেক তৈরির টিউটোরিয়াল দেখে নিজেও তৈরি করতে পারেন কেক। এতে কেকের সাথে ভালোবাসাও মিশে থাকে। 

ভিডিওতে ধরে রাখুন সবটা স্মৃতি

পরিবারের নতুন সদস্যকে ঘিরে এই উত্তেজনা কি শুধু ছবিতেই আটকে থাকবে? উঁহু, একদম নয়। নতুন শিশুর দরজা থেকে ঘরে আসার পুরো সময়জুড়ে ভিডিও করে রাখুন। ছোট্ট শিশুকে জন্য আপনজনেরা তাদের অনুভূতি আর ভালোবাসা প্রকাশ করতে পারেন ভিডিওতে। হয়তো এখন নয়, কিন্তু ১৮ বছর পর জন্মদিনে ছোটবেলার এই বিশেষ ভিডিওটি উপহার হিসেব পেতে নিশ্চয় আপনার ছোট্ট সোনামণির ভালো লাগবে! আমরা সবাই স্মার্টফোন ব্যবহার করি। তাই ছবি তোলা আর ভিডিও রেকর্ডের এই কাজটা ঘরে বসে নিজেরাই করে ফেলা সম্ভব!

উপহারের ঝুড়ি

শিশুর জন্য থাকুক ঝুড়িভর্তি উপহার!

ছোট্ট শিশুর প্রয়োজন পড়ে অনেক অনেক সামগ্রীর। সেগুলো তো উপহারের ঝুড়িতে থাকতেই পারে। এছাড়া ডিজাইন করা মোমবাতি, ছোট্ট রুমাল, খেলনা ইত্যাদি দারুণ কিছু উপহারের মিশেলে একটি উপহারের ঝুড়ি তৈরি করুন। উপহারগুলো যেকোনো সুপার শপে বা অনলাইন দোকানে কিনতে পাওয়া যাবে। ইচ্ছে হলে হাতে বানানো পুতুল তৈরি করতে পারেন! যদি শিশুর কোন বড় ভাই বা বোন থেকে থাকে, তাকেও এসব কাজে সহযোগিতা করতে বলুন। এতে করে সে যেমন আনন্দ পাবে, তেমনি ভালোবাসার বন্ধন তৈরি হবে ছোটবেলা থেকেই।  

সেজে উঠুক শিশুর ঘর

শিশুর জন্য আরামদায়ক খাট না হলে কি চলে?

শিশু তার নিজের ঘরে ছোট্ট বিছানায় শুয়ে থাকবে, দোলনা বিছানায় দুলুনি খাবে- দৃশ্যটা অসম্ভব সুন্দর, তাই না? তাই শিশুর ঘরের ভেতরে আয়োজন করুন খাট এবং দোলনার। ইচ্ছে হলে সাজিয়েও তুলতে পারেন সেগুলোকে! 

দোলনা বা খাটের মতো জিনিসগুলো অনলাইনে কিনে ফেলতে পারেন। তবে যদি বিশ্বস্ত কোন ব্র্যান্ড থেকে কিনতে চান, সেক্ষেত্রে হোম ডেলিভারি নিতে পারেন। অনলাইন ডেলিভারি কোম্পানিগুলোও প্রয়োজনীয় সব সামগ্রীই বাড়িতে পৌঁছে দিয়ে যাচ্ছে। নিজের পছন্দমতো পণ্য কিনে তাদের মাধ্যমে বাড়ি পর্যন্তও ডেলিভারি নিয়ে নিতে পারেন।

স্মৃতিগুলো ধরে রাখুন

অনেকেই খুশির আতিশয্যে আনন্দের এই সময়গুলোকে ধরে রাখতে ভুলে যান। তাই ছবি তুলতে যেন ভুলবেন না। শিশুর ঘরে প্রবেশ করা থেকে শুরু করে বিছানায় দোল খাওয়া- সবটাই ধরে রাখুন আলোকচিত্রে। 

ছোট্ট একটা ফটো বুথ তো থাকতেই পারে!

বাড়িতে ফটো বুথ সাজিয়ে তুলতে পারেন। অনেকেই এখন পেশাগতভাবে কাজটি করে থাকেন। কিংবা আপনি নিজেই ভেবেচিন্তে একটি ফটোবুথ দাড় করাতে অয়ারেন। শিশুর চারপাশে আপনি বা পরিবারের সবাই মিলে এই বুথেই ছবি তুলে ফেলতে পারেন খুব সহজে!

রাঙিয়ে দিন শিশুর ঘর

মেয়ে শিশু, নাকি ছেলে শিশু- কে আসতে যাচ্ছে ঘরে? তার জন্য তৈরি করা নতুন ঘরটিকে রাঙিয়ে দিন ইচ্ছেমতও। মেয়েশিশুর জন্য গোলাপি রঙে, আর ছেলে শিশুর জন্য নীলে সাজিয়ে নিন পুরো ঘর। শিশুর ঘরে স্বাস্থ্যের জন্য নিরাপদ রঙ ব্যবহার করতে চাইলে বার্জারের BREATHE EASY দারুণ সব রঙয়ের মধ্য থেকে যেকোনো একটি বেছে নিতে পারেন। 

আর রঙয়ের সাথে সাথে মিলিয়ে নিয়ে দেয়ালে দারুণ সব দৃশ্য একে দিতে পারেন ILLUSION। তবে খেয়াল রাখুন যেন রঙয়ের সাথে ঘরের বাকি আসবাবপত্রগুলো মানিয়ে যায়।

কোথায় পাবেন?

ছোট্ট শিশুর যা যা জিনিস প্রয়োজন সেগুলোর সবগুলোই কিডস অ্যান্ড মম, আড়ং, নিপুণ, শৈশব, বেবি শপ, কিডস কালেকশন, চাঁদের হাসি, কিডজি ইত্যাদি স্থানে কিনতে পাবেন আপনি। বেশ কিছু শপ হোম ডেলিভারিও দিচ্ছে। খাট ও দোলনা পাওয়া যাবে উপরের কিছু স্থানেই। এছাড়া হাতিল, গুলশানের নতুন বাজার, পান্থপথের আসবাবের দোকান- এসব স্থানেও দোলনা ও খাট কিনতে পাবেন আপনি। তবে এসব স্থান থেকে হোম ডেলিভারি নেওয়া কঠিন। সেকঝেত্রে অনলাইন দোকানগুলোকেই বেছে নেওয়া শ্রেয়।

কেকের জন্য নামকরা সব কেক শপগুলো তো রয়েছেই। সাথে অনলাইনের রয়েছে দারুণ কিছু কেকের দোকান, যেগুলো আপনার চাহিদামাফিক কেক বানিয়ে দেবে আপনাকে। এছাড়া এমন কিছু অনলাইন শপ থেকেই ইচ্ছে করলে ঘর সাজানো থেকে শুরু করে ফটো বুথ তৈরি- সবটাই করিয়ে নিতে পারবেন আপনি। তবে যাই করুন না কেন, স্বাস্থ্যবিধি মেনেই করতে হবে।  

খরচটা কেমন হবে?

খাট এবং দোলনার ক্ষেত্রে কাঠ, বেত, স্টিল- যেকোনো একটি বেছে নিতে পারেন আপনি। সেক্ষেত্রে স্ট্যান্ডসহ নিচ্ছেন, নাকি স্ট্যান্ডবিহীন- তার উপরে নির্ভর করে এর দাম। বেতের দোলনা খাট ৩,০০০ টাকা থেকে শুরু করে ৭,০০০ টাকা পর্যন্ত হতে পারে। স্টিল ও কাঠের ক্ষেত্রে বাজেট ১৫,০০০ টাকা রাখাটাই যথেষ্ট। 

কেকের ক্ষেত্রে সাধারণ কেকের মতোই দামটা পড়বে। ১,২০০- ২,৫০০ টাকার মধ্যে চাইলে কেকের খরচ রাখতে পারেন আপনি। এছাড়া, আপনি চাইলে আপনার পুরো ঘরকে সাজিয়ে, ফটো বুথ তৈরি করে দেবে- এমন এভেন্ট ম্যানেজমেন্টও কিন্তু রয়েছে। সেক্ষেত্রে ৫,০০০-১৫,০০০ টাকা বাজেট রাখাটাই ভালো।

ঘরে ছোট্ট শিশুর আগমনটা হোক হোক অনেক অনেক আনন্দের!

কী ভাবছেন? উপরের কোন কোন আয়োজন রাখবেন পরিবারের নতুন অতিথিকে স্বাগতম জানানোর অনুষ্ঠানে? লিস্টটা করে ফেলুন এখুনি! 

  •  
  •  
  •  
  •   

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *