parallax background

সময় কাটুক অরিগামি-তে।

অরিগামি কে না ভালবাসে? হাতের কাছে থাকা কাগজ দিয়ে বানানো ফুল, প্রজাপতি, পাখি, পাখা, তারা, প্লেন, পাতা, পমপম… সবই সুন্দর দেখতে, বানাতেও মজার। অরিগামিতে সবচেয়ে মুগ্ধ বাচ্চারা তবে আপনার ভেতর বসবাস করা শিশু স্বত্বাটিও অরিগামি বানিয়ে ঘর সাজাতে ভীষণ ভালোবাসতে পারে কিন্তু! কিছু রঙ-বেরঙ এর কাগজ, গ্লু গান আর খুচরো সময় নিয়ে আপনি কিন্তু ঘরে বসেই হয়ে যেতে পারেন অরিগামি আর্টিস্ট। দেয়াল, ছাদের সিলিং, বারান্দা, দরজা সব কিছুই অরিগামির নানা ডিজাইন করে সাজিয়ে ফেলা যায় জলদি। কোন বিশেষ অনুষ্ঠান-কেও মাথায় রেখে রঙ আর কাগজ মিলিয়ে তৈরি করে ফেলা যায় যেকোন অরিগামি। 

অরিগামি একটি জাপানী শব্দ। ‘অরি’ মানে ভাঁজ আর ‘গামি’ অর্থ কাগজ। সোজা বাংলায়, একটি বর্গাকার কাগজকে নানা ভাঁজে ভাঁজ করার মাধ্যমে নির্দিষ্ট একটি জিনিসের আকৃতি প্রদান করাই হলো অরিগামি। এটি মূলত একটি জাপানী ঐতিহ্য।   

অরিগামি’র জগৎ-এর বিখ্যাত বাসিন্দা ‘প্রজাপতি’। দেয়ালে প্রজাপতি, ছাদের সিলিং জুড়ে প্রজাপতি বা উইন্ড চাইমের অনুষঙ্গে প্রজাপতি অরিগামি দেখতে সুন্দর লাগে, বানাতেও সহজ। আপনার পছন্দসই এবং ঘরের দেয়াল, সিলিং-এর সাথে মানানসই কাগজ ভাঁজ করে কয়েকটি স্টেপেই বানানো যায় প্রজাপতি। 

উইন্ড চাইমে অরিগামি সংযুক্ত করে সেটি ঘরের যে কোন কোণায় টানিয়ে দিতে পারেন। এই ক্ষেত্রে আপনার পছন্দ অনুযায়িই আপনি অরিগামির শেইপ, রঙ নির্ধারন করতে পারেন। 

নানা অনুষ্ঠান-কে মাথায় রেখে অরিগামি বানিয়ে চমকে দিতে পারেন আপনার প্রিয় কাউকে। অ্যানিভার্সারি, জন্মদিন, বিয়ের কোন আয়োজন  বা যেকোন সারপ্রাইজ পার্টি অরিগামি দিয়ে ঘর সাজানো যেমন বাজেট ফ্রেন্ডলি তেমনি আন্তরিক। দেয়ালে, পার্সোনাল কার্ডে ডেকোরেশনের জন্য এই ধরনের অরিগামি বানানো যায়, কাগজের মানের দিকে একটু খেয়াল রাখলে এই ধরনের অরিগামি অনেক দিন একই রকম থাকে।

অরিগামির আরো দুটি সহজ কিন্তু আকর্ষনিয় প্রাপ্তি হচ্ছে পমপম এবং কাগজের পাখা। একটি বড় হালকা পেপার-কে অনেক ছোট ছোট ভাঁজে ভাঁজ করে করে তাতে সুতা পরিয়ে বানানো হয় পমপম আর সুতা ছাড়া সেটা হয়ে যায় জাপানীজ পাখা। পহেলা বৈশাখের আয়োজনে পমপম খুবই জনপ্রিয়, কাজগের আকৃতির উপর একটি কত বড় হবে সেটা নির্ভর করে, আর হাত পাখা দিয়ে দেয়াল সাজাতে পারেন যে কোন সময়। শিশুদের ঘর পমপম দিয়ে সাজিয়ে তুললে সেটির আকর্ষন বেড়ে যায় অনেক।

সরাসরি দেখে দেখে অরিগামি করার জন্য আছে বিশাল তালিকা। কয়েক হাজার টিউটরিয়াল আছে। শিশুদের জন্য আলাদা বিভাগ। এতে পাওয়া যাবে ভালুকের মুখ, নৌকা, টেবিল-চেয়ার বানানোর উপায়। সাইটটি ব্যবহার করা অনেক সহজ। তবু সহজে ব্যবহার করার জন্য আছে সাইট ম্যাপ। এতে শ্রেণি অনুযায়ী সাজানো আছে সব কিছু: www.origami-instructions.com

  •  
  •  
  •  
  •   

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *